-->

ফোন হ্যাক থেকে বাচাঁর ১০ টি কৌশল! Get Secure Your Smartphone from Hackers

How to Get Secure Your Smartphone from Hackers ||

আপনি যদি একজন Smartphone ব্যবহারকারী হয়ে থাকেন এবং ফোনটিকেই আপনি আপনার প্রধান অনলাইন সঙ্গী হিসেবে ব্যবহার করে থাকেন তবে আপনার ফোনটি হ্যাকার দের ক্ষতি সাধন হওয়া থেকে বাচিঁয়ে রাখা একান্ত জরুরী। আর আজকে আপনাদের সাথে এই বিষয়েই আলোচনা করা হবে।

একটা Smartphone এর মাঝে আপনার যাবতীয় Information থাকতে পারে, আপনার Bank Details আপনার Facebook Account, Emails যাই বলুন না কেন সমস্ত কিছুই হয়তো এখানে রয়েছে। এবার চিন্তা করুন তো কোনো ভাবে যদি একজন হ্যাকার এই ফোনটাতে কিছু সময়ের জন্য হলেও দখল নিতে পারে বা ট্রাকিংক করতে পারে তাহলে সব কিছুই কিন্তু তার কাছে চলে যাবে এবং আপনি পড়ে যাবেন মহা এবং মহা বিপদে। আর ব্যাপারটি আপনার জন্য এক কথায় বলা যেতে পারে ১০ নং মহা বিপদ সংকেত বা জাপানী ভাষায় সুনামী সংকেত। তো এই সকল হ্যাকারদের হাত থেকে কিভাবে আপনার ফোনটিকে বাচাঁবেন চলুন একে একে জেনি নিই।


Get Secure Your Smartphone from Hackers


শুরুতে যেমনটা বলছিলাম যে কোনভাবে যদি আপনার ফোনটাকে হ্যাক করা হয় তাহলে আপনার যাবতীয় ইনফরমেশন গুলো হ্যাকারের কাছে চলে যাবে। এবং বিভিন্ন ভাবে তখন সে আপনাকে অনেক কিছুই করতে পারে। যেমন ব্ল্যাকমেইল করতে পারে বা আপনার ব্যাংকের টাকা পয়সা উধাও করে দিতে পারে। এটা খুব সহজ ব্যাপার হ্যাকারদের জন্য। যাহোক চিন্তার কোন কারণ নেই যেখানে সমস্যা সেখানে খুজঁলে সমাধানও পাওয়া যায়। 

1. Using Google Palystore: আপনি যখন আপনার মোবাইল ফোন টিতে কোন |Application বা সফটওয়্যার ডাউনলোড করবেন বা করতে চাইছেন চেষ্টা করুন সেটিকে গুগল প্লে স্টোরস ( Google play store) ডাউনলোড ও ইনষ্টল করার। অপরিচিত সাইট বা এ্যাপ সোর্স থেকে বা না জেনে হুট করে কোন এ্যাপকে ব্যবহার করা থেকে বিরত থাকতে হবে। Google play store এ যখন কোনো একটা Application রাখা হয় সেটা আপনাদের নিরাপত্তার কথা চিন্তা করে বেশ কিছু ফিল্টারিং এর মধ্যে দিয়ে আসে।  এবং Google play protect যেটা রয়েছে সেটাও কিন্তু ওটাকে যাচাই বাছাই করে দেখে এবং তারপরই প্লেস্টোরে থাকার সুযোগ দেওয়া হয় অন্যথায় সেই এ্যাপটি প্লে স্টোরে থাকার কোন সুযোগ নেই। যদিও এসব কিছুর পরেও সম্প্রতি Google play store এর বেশ কিছু এপ এ ম্যালওয়ার দেখতে পাওয়া গিয়েছে। এমনকি সাম্প্রতিক সময়ে একটা খবর বেশ ফলোয়াপ হয়েছে  সেটি হলো, Google তাদের play store থেকে আঠারোটারও বেশী Application কে নিষিদ্ধ ঘোষনা করেছে ম্যালওয়ার পাওয়ার জন্য। এর আগেও বেশ কিছু খবর পাওয়া গিয়েছিলো যে তার ৫০ এরও বেশী এ্যাপকে তারা নিষদ্ধ করেছে এবং প্লেস্টোর থেকে রিমোভ করে দিয়েছে।  

এবার তাহলে চিন্তা করুন, গুগলের মত সিকিউর ফিল্টারিং ব্যবস্থা থাকার পরেও যারা ক্রিমিনালী করার চেষ্টা করছে সেখানে অন্য সাইট বা এ্যাপ সোর্সের তো কোন কথায় থাকে না। 

2. Checking the Ratings: ডাউনলোড - ইনষ্টল পরবর্তী সতর্কতা: অবশ্যই Google play store থেকে Application ডাউনলোড করার পূর্বেই এ্যাপটির রেটিং দেখুন। এ্যাপটি ঠিকভাবে কাজ করছে কি না, ব্যবহারকারীরা কি ধরনের সমস্যার মুখোমুখি হচ্ছে এ সকল বিষয়ে তাদের কমেন্টগুলি আগে পড়ে দেখুন তারপর যদি ভাল মনে করেন তাহলেই কেবল সেই এ্যাপটিকে আপনার ফোন স্টোরেজে যায়গা দেওয়ার কথা চিন্তা করুন।

3. User Permission: যাক, অনেক দেখে ও ভেবে চিন্তে হয়ত এ্যাপটিকে ইনষ্টল করলেন এরপরেই বিশেষ মুহুর্তে  দেখবেন অডিও ভিডিও বা ক্যামেরা ইত্যাদী বিষয়গুলি একসেস করার জন্য এ্যাপটি আপনার কাছে পারমিশান বা অনুমতি চাইছে। যখুনি কোন পারমিশান চাইবে একটু ভাল করে পড়ে দেখবেন এ্যাপটি কিসের পারমিশান চাইছে। সে আপনার ফোনের কোন অংশটিতে ঢুকার জন্য অনুমতি চাইছে। ফাইনালি ব্যাপারটা রিস্কি হয়ে যাচ্ছে কি না এবং এ্যাপটিকে ঐ ব্যাপারে আপনি বিশ্বাস করতে পারেন কি না, এসব ভেবে চিন্তে এ্যাপটিকে পারমিশান দিবেন বা Allow লেখাতে টাচ করবেন। 

4. Avoid Unknown Outgoing: একটা এ্যাপে ঢুকেছেন তো বিভিন্ন ধরনের এ্যাড আসা শুরু হয়ে গেলো, পপ আপ বা নোটিফিকেশান আসা শুরু হয়ে গেলো। আকর্শনীয় কিছু লিখে সাথে কোন লিঙ্ক ও চলে আসলো। এছাড়া ইমেইলেও হয়ত কোস স্পাম লিংক যুক্ত মেইল আসলো। তো যেটাই আসুক না কেন, ক্লিক করার আগে ভাল ভাবে জেনে দেখুন, পড়ে দেখুন এবং বুঝে দেখুন কি করতে যাচ্ছেন বা কি করতে চাইছেন। এ ধরণের লিংক বা ইমেইলের বেশীরভাগ ক্ষেত্রেই দেখা যায় সেখানে লোভনীয় প্রস্তাব রাখা হয়। হতে পারে যে, আমি অমুক বলছি তুমি আমাদের সাথে কাজ করতে পারো। ঘরে বসে অনেক টাকা রোজগার করতে পারো। এই সুযোগ হাত ছাড়া করতে না চাইলে এইমাত্র এই link টাতে click কোরো।  এখানে আমাদের প্রোডাক্ট সম্বন্ধে রয়েছে, এবং তুমি যদি এই কাজটা করো তাহলে অনেক অনেক টাকা পয়সা দেওয়া হবে। এছাড়া আরো অনেক ভিন্ন ভিন্ন লোভনীয় কিছু।

এমনও হতে পারে কোন একটা সুন্দরী মেয়েও আপনাকে একটা ইমেল করতে পারে।  দেখবেন যে সে বলবে এটা আমার পার্সোনাল প্রোফাইল তুমি এখানে গিয়ে দেখতে পারোআমার সম্বন্ধে সমস্ত কিছু ।আমার অনেক ছবি দেওয়া রয়েছে, তুমি সেগুলি দেখতে বা আমাকে মেসেজ করতে লিংকে ক্লিক করো ইত্যাদী ইত্যাদী। এবার যে লোভ সামলাতে না পেরে ক্লিক করে বসবে তাহলে খেলা শেষ। যাকে বলে লোভে পাপ, আর পাপে মৃত্যু। এটা এক ধরনের মৃত্যু ই বলা যেতে পারে। কারন আপনার এই ভুলটার কারনে হয়তো আপনার জীবনের অনেক বড় ক্ষতি সাধন হয়েও যেতে পারে, যেটা আর কোনদিনও পূরণ সাধ্য না অথবা অনেক সময় লেগে যাবে পূরন হতে। যেকারণে এ ধরনের মেসেজ বা ইমেইল বা নোটিফিকাশনের অতিরিক্ত লোভনীয় জিনিস গুলোকে অবশ্যই বর্জন করবেন।

5. Update Your OS and App: আপনার ফোনটি যখনই আপনার কাছে অপারিটেং সিস্টেম আপডেট বা বিশেষ কোন এ্যাপ আপডেট চাইবে সেটি করে নিবেন। কারণ আপনাকে বুঝতে হবে যেফোন গুলো কেন বার বার আপনাকে সিকিউরিটি আপডেট পাঠাচ্ছে, Google কেন বারবার আপডেট করার জন্য আপনাকে তাগিদ দিচ্ছে। কারণ এ ধরনের কেসে নতুন আপডেট টি পুরনো আপডে৪টের চেয়ে বেশী সিকিউর থাকে বা সুরক্ষিত থাকে। পুরনোটাতে সিস্টেম ভেঙে কিভাবে হ্যাক করতে হয় সেগুলি হ্যাকার র আবিস্কার করে নেয়, যে কারণে আপনার ডিভাইস আপটু ডেট থাকার মানে হ্যাকাররা আপনাকে পুরনো মেথডে আর ক্ষতি করতে পারবে না। আশাকরি বিষয়টা বুঝতে পেরেছেন।

6. Avoid Rooting Your Phone: আমরা অনেকেই ফোন রুট করি বা জেল ব্রেক করি। তো এগুলো করলে বেশীরভাগ ক্ষেত্রেই ফোনের যেই স্বাভাবিক শক্তিটা থাকে, বা ফোনের যে security system টা থাকে, সেটা অনেকটা নড়বড়ে হয়ে যায়. তখন কিন্তু হ্যাকারের জন্য আরেকটু সহজ হয় আপনার ক্ষতি সাধন করা। তাই নিজের ফোনটা সম্পর্কে খুব বেশী জ্ঞানী না হলে এ ধরনের কাজ করা থেকেও বিরত থাকা উচিৎ বা থাকবেন।  

8. Turn on Find my Device: কোন ভাবে আপনার ফোনটি যদি হারিয়ে যায় সেক্ষেত্রেও আপনার গুরুত্বপূর্ণ  তথ্যের বাজে ব্যবহার কিন্ত হতে পারে। তো যে কারণে এই ক্ষেত্রেও অবশ্যই আপনি আপনার ফোনে থাকা Find my Device অপশনটিকে অন করে রাখুন। Google এর Find my Device অপশনটি অন রাখলে ফোনটি চুরি যাবার পর বা হারিয়ে যাবার পর আপনার ফোনটির লোকেশান খুব সহজেই যানতে পারবেন। অবশ্য এটা অনেক দেরী হয়ে গেলে হয়ত আর পাওয়া যাবে না তবে এরকম সমস্যার ক্ষেত্রে অনতিবিলম্বে অন্য|কোন ডিভাইসের সাহায্যে আপনার ফোনের একটিভ ইমেইল একাউন্ট থেকে All Device Lou Out করে দিতে হবে। যাতে সে আপনার ইমেইল ব্যবহার করার মাধ্যকো কোন প্রকার একসেস না নিতে পারে।

এছাড়াও ঐ ফোনে যতগুলি একটিভ একাউন্ট রয়েছে সবগুলিকেই লগ আউট করে দিতে হবে। এরকম ক্ষেত্রে বাচার জন্য টু স্টেপ ভেরীফিকেশান একটিভ থাকলে সবচেয়ে বেশী উপকৃত হওয়া যায়।

9. Avoid Leaking Browser: কিছু কিছু ব্রাউজার পাবেন যারা আপনার তথ্যগুলিকে পাচার করে বা অন্য কোথাও বিক্রি করে দেয়। বেশ কিছু দিন আগে এরক কিছু ঘটনা নিয়ে UC Browser এর নাম উঠেছিলো যে তারা ব্যবহারকারীর ইমেইল ও অন্যন্য তথ্য আলিবাবা শপিং সাইটে সেল করে দেয়। যাহোক, এছাড়াও আরও অনেক ব্রাউজার আছে প্লেস্টোরে কিন্ত নিশ্চিত না হয়ে অপরিচিত ব্রাউজার ব্যবহার করা থেকে বিরত থাকবেন। ব্রাউজার হচ্ছে এমন একিট মাধ্যম যেখানে আপনি আপনার সব একাউন্ট পাসওয়ার্ড  টাইপ করে দেন। সুতরাং সাবধান!

আমার পরামর্শ হচ্ছে গুগল ক্রোম ব্রাউজার (Google Chrome), ব্রেভ ব্রাউজার (Brave Browser), মজিলা ফায়ারফক্স (Mozila FireFox) এবং মাইক্রোসফট ইডিজিই (Microsoft's EDGE) ইত্যাদী। 

10. Using Antivirus Application: সত্যি বলতে আমরা আমাদের মত, আর গুগল তারমত যতই এলার্ট থাকি না কেন এরপরও খারাব মানুষেরা বিভিন্ন ডিজিটাল বা অনলাইন উপায়ে আপনার ক্ষতি করতে সক্ষম হবার সুযোগ পেতে পারে। সেক্ষেত্রে কম্পিউটারের মত ফোনেও একটা ভাল মানের এন্টিভাইরাস এ্যাপ ব্যবহার করতে পারেন।

বিশেষ করে বন্ধুরা, আপনি যদি আপনার ফোনটিকে ব্যবহার করে ক্রেডিট কার্ড, মাস্টার কার্ড, পেপাল, স্ক্রিল, মানি বুকারস, পায়োনিয়ার এ জাতীয় অনলাইন লেন-দেন গুলি করতে অভ্যস্ত থাকেন তাহলে তো কথায় নেই। আপনাকে অবশ্যই ভাল মানের কোন এন্টিভাইরাস আপনার ফোনে ইনষ্টল থাকতে হবে। তাহলেই ব্যাপারটায় আপনি ৯৯% নিশ্চিৎ বা নিরাপদ থাকতে পারবেন।

11. Avoid Free Charging Points: সর্বশেষ যেই বিষয়টি বলবো সেটি হচ্ছে ফ্রি চার্জিং পয়েন্ট ব্যবহারে সতর্ক থাকা। অনেক সময় আমরা কোন লোডের দোকানে বা কোন ফ্রি চার্জিং পয়েন্টে ফোনটিকে ক্যাবলের সাথে কানেক্ট করে চার্জ দেওয়া শুরু করে। আর আপনি যখন এই সুযোগটাকে কাজে লাগিয়ে ফোনটিকে চার্জ করে নিচ্ছেন তখন হয়ত কেও একই সুযোগটিকে কাজে লাগিয়ে আপনার ফোনের ডাটাগুলিকে কপি বা ট্রান্সফার করে নিচ্ছে! সুতরাং সব সুযোগ কিন্ত সুযোগ নয়, কিছু সুযোগ মরণ ফাঁদও হয়।

তো বন্ধুরা, যতটুকু আলোচনা আপনাদের সাথে শেয়ার করলাম, বিষয়গুলি যদি খুবই গুরুত্ব সহকারে খেয়াল রাখতে পারেন এবং মেনে চলতে পারেন তবে আশাকরি আপনার ফোনকে হ্যাক করে আপনার ক্ষতি করা কারও পক্ষেই এতটা সহজ হবার নয়। 

Tags: How to Get Secure Your Smartphone from Hackers, phone security app, how to secure my phone from hackers, mobile phone security, smartphone security, phone security apps, check my phone security, android phone security, mobile phone security tips, android tips, android bangla, bdhelp24, bangla tips, mobile tips, android antivirus.

SeeCloseComments
Cancel