-->

৭৬৯০ টাকায় সাধ্যের মধ্যে মনের মত ফোন | Itel Vision 1 Pro

মাত্র ৭৬৯০ হাজার টাকায় খুব সুন্দর একটি ফোন | Itel Vision 1 Pro Specification & Price |

প্রিয় বন্ধুরা, আজকে আপনাদের সাথে শেয়ার করতে যাচ্ছি খুব অল্প দামের একটা এক্সসাইটিং ফোন রিভিউ। দামের সাথে তুলনা করলে ফোনটা অনেক বেশি ভালো এবং গ্রহনযোগ্য। বিশেষ করে যারা কাউকে অল্প দামের ভিতরে ভালো একটি ফোন উপহার দিতে চান। অথবা নিজেও ব্যবহার করতে চান।

Itel Vision 1 Pro in Bangladesh


ডিসপ্লে (Display): Itel Vision 1 Pro ফোনটি তে পাবেন .’’ ওয়াটারড্রফ Full Screen HD+ রেজুলেশন ডিসপ্লে। যার এসপেক্ট রেশিও ./৯। ডিসপ্লে প্রটেকশন নিয়ে তেমন কোন তথ্য এখানে নেই। তাই একটি টেম্পার গ্লাস ব্যবহার করলে ভালো হবে। ডিসপ্লে কোয়ালিটি মোটামোটি ভালো। রিভিউ এঙ্গেল, কালার, টাচ রেস্পন্স সব কিছু বেশ ভালো। বিশেষ করে দামের কথা চিন্তা করে। 

ওভার ব্রাইটনেছ (Over Brightness) : তবে হ্যা ডিসপ্লেতে একটা বিষয় স্বাভাবিক নয়। আর তা হলো ওভার ব্রাইটনেছ। রাতের বেলা এই বিষয়টা চোখে পরার মতো। যার কারনে কালার কিছুটা ফেডেড হয়ে যায়। ওভার ব্রাইটিং থাকায় ডিসপ্লের নিচের পুশ অনে কিছুটা গরম হচ্ছিলো। তবে এটা ইঞ্জিনিয়ারিং ইউনিট হওয়ার কারনে হতে পারে। আর Full Brightness এর গেম খেলতে গিয়ো কিছুটা গরম হয়ে যাচ্ছিলো। আশা করা যাচ্ছে আগামীতে এই সমস্যাটা আর থাকবে না। এছাড়া কন্টিনিউ ওয়াচে কোন সমস্যা নেই ফোনটিতে।

কালার (Colors) : ফোনটিতে খুব সুন্দর দুই কালার রয়েছে। আইসক্রিষ্টাল ব্ল, কসমিক সাইন। কালার দুইটি বেশ ইউনিক। এটাতে খুব সুন্দর রিডিয়াল গ্রেডিং দেওয়া হয়েছে। যা ফোনের দর্শনকে আরো বেশি গর্জিয়াস করে তুলেছে। কসমিক সাইন কালারটি সত্যি দেখার মতো একটি কালার। পেছনের রিডিয়াল গ্রেডিং এর পাশাপাশি রয়েছে ক্রস চেক পেটার্ন। যেটা ফোনটিকে আরো বেশি সুন্দরর্য বাড়িয়ে দিয়েছে।

ফোনের ওজন (Weight) : ফোনটি বেশ স্লিম এবং হালকা। মাত্র . মিলি মিটার থিকনেছ। হাতে থাকলে বোঝায় যায় না যে, হাতে কোন ফোন আছে। 

ব্যাকসেল  (Backcell) : ফোনটির ব্যাকসেল খোলা যায়। সেখানে রয়েছে। সেখানে দুই টি সিম কার্ড একটি মাইক্রো এসডি মেমোরী ব্যবহার জায়গা।

কভারস এন্ড বাটনস (Covers & Buttons): একদম উপরে রয়েছে . মিলি মিটারের একটি হেড ফোন জ্যাক। নিচে রয়েছে Micro HD Port মাইক। এছাড়া ডান পাশে রয়েছে পাওয়ার বাটন ভলিউম রকারস। বাম পাশে তেমন কিছুই নেই। পেছনে রয়েছে ফিঙ্গার প্রিন্ট স্কানার। যার পজিশন একেবারে ঠিক। ফোনটি ধরার পর যথাযথ ভাবে ফিঙ্গার প্রিন্ট স্কানারের উপর হাত রাখা যায়।

ফিঙ্গার প্রিন্ট আনলক স্পিড (Fingerprint Unlock Speed ): আপডেট এবং উন্নত মানের ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর। ফিঙ্গার প্রিন্ট আনলক স্পিডের কথা বললে, বলা চলে দাম হিসাবে এটা এভারেজ রেসপন্স করে এটি। তাই এব্যাপারে খুব একটা অভিযোগ আপনি দিতে পারবেন না আশা করি।

ম্পিকার (Speckar ): ফোনের নিচের দিকে রয়েছে লাউড স্পিকার। উপরের দিকে রয়েছে মুল স্পিকার। যার ফলে সাউন্ড কোয়ালিটি খুব  ভালো মানের হয়েছে।

চিপসেট (Cheap Set): চিপসেট হিসাবে রয়েছে ইউনি এসোসিয়ের SC9832E. কোয়াটকোর . GHz এর  সিপিইউ। আর জিপি হিসাবে রয়েছে মালি T820. এন্ট্রি লেবেল হিসাবে এই চিপসেট হিসাবে বেশ ভালোই। বেশি চাপের ভেতরে না ফেললে নরমাল কাজ গুলো বেশ ভালো ভাবেই করা যাবে।

UI : Android 10 Custome UI. ট্রানজেকশন ইনিমেশন গুলো বেশ ভালো ব্যবহার করা হয়েছে। তবে কিছুটা স্টটার লেভেল দেখা যাবে। তবে এন্ট্রি লেভেল বাজেট হিসাবে সেটা খুব একটা ধরার বিষয় না।

স্পেশাল ফিচার : স্পেশাল ফিচার হিসাবে এতে রয়েছে থ্রি ফিঙ্গার সোয়াইভ স্ক্রিনশর্ট। ফ্লটিং বল সহ আরো ইত্যাদি। সব রকম APP এতে রান করে। আর একটা বিষয় রয়েছে যা খুব মজার, আর তা হলো আপনার ব্যাকগ্রাউন্ডে যে সকল APP দরকার নেই, সেগুলো অটোমেটিক বন্ধ হয়ে যায়। এতে করে আপনার ইন্টরনেট এবং ব্যাটারী অনেক সাশ্রয় হচ্ছে। এবং সেই RAM কিছুটা ফ্রি থাকছে এবং ইউজার স্মুথলি কাজ করতে পারছে। কারন এন্ট্রি লেভেল ডিভাইজে এই বিয়ষটা খুব দরকারী।  কিছু বোনাস ফিচার রয়েছে ফোনটিতে, যেমন: AI GlarryAPP. এটি এই কোম্পানীর নিজস্ব ভাবে বানানো একটি ইমেজ কম্প্রেসর। এই কম্প্রেসর ছবির কোয়ালিটি না কমিয়েও ছবির সাইজ কম বেশি করতে পারে। বিয়টি খুবই সুন্দর এবং মজার। যদিও এই বাজেটে আপনি এই ডিভাইজকে গেমিং ডিভাইজ হিসাবে করতে পারেন না।

গেম (Game): পাবজি বা অন্য গেম গুলো লাইট Version Download দিতে পারবেন। এছাড়া Free fire গেমস খেলতে পারবেন। অন্যান্য নরমাল গেম গুলো খুব এবং স্বাচ্ছন্দ ভাবেই খেলতে পারবেন।

RAM : 2 GB

ROM : 32 GB

ব্যাটারী (Battery) : এই মডেলের অন্য ফোনের চেয়ে এই ফোনের ব্যাটারী আরো অনেক বেশী কার্যকর করা হয়েছে। ৪০০০ Mha মেচিব ব্যাটারী। যা নরমাল ব্যবহার করার ক্ষেত্রে দের থেকে দুই দিন আরামে  ব্যাকআপ দিবে। তবে মাত্র 5 ওয়াটের চার্জি ইউএবি চার্জিং প্রসেসটা অনেক স্লো। তাই প্রায় তিন ঘন্টার মতো লাগবে ফুল চার্জ হতে। তবে বাজেট ডিভাইজ হিসাবে এই বিষয়টি কন্সিডার করা যায়।

ক্যামেরা (Camera) : পেছনে তিনটি ক্যামেরা রয়েছে। মেগা Pixels এর সাথে দুই টি Key VGA ক্যামেরা দিয়েছে। একটি ডেম সেন্সর আর একটি হলো AI Lance. তাতে করে আউট ডোর ডে লাইটে পর্যপ্ত পরিমাণ আলো থাকলে ছবির কোয়ালিটি বেশ ভালোই আসে। তবে ইনডোরে Sharpness কিছুটা ঘাটতি রয়েছে। তবে পর্যাপ্ত পরিমাণের ভালো আলো পেলে নয়েজ গুলো কমে আসে এবং ছবিও ভালো ওঠে। ডায়নামিকে রেঞ্জ ওতো ভালো না। অবশ্য এই বাজেটে সেটা আশা করাও ঠিক না। এছাড়া ফোনটাতে ক্যামেরার জন্য কিছু ফিচার রয়েছে। প্রটেট HDR, Darty Lance Direction. সামনে Mega Pixels এর একটি সেলফি ক্যামেরা রয়েছে। তা দিয়ে বেশ ভালোই সেলফি তুলতে পারে ক্যামেরাটি। সেলফিতে প্রেটেট মুড আছে। ভিডিও কোয়ালিটিও বেশ ভালো।

4G : 4 জি এলটিই সহ একটি দ্রুত অভিজ্ঞতা উপভোগ করুন! ডাউনলোড, স্ট্রিমিং বা ওয়েব ব্রাউজিং যা- করুন না কেন, 4 জি এলটিই এবং ভিওএলটিই সবকিছুকে আরও দ্রুত করে তোলে! উন্নত ভয়েস কলের গুণগত মান এবং সংযোগের সময় হ্রাস পায়।

মূল্য (Price) : ফোনটির জন্য অফিশিয়াল বাজার মূল্য ধার্য্য করা হয়েছে ৭৬৯০ টাকা। সাথে থাকছে বছরের বিক্রোয়োত্তর সেবা মানে বছরের ওয়ারেন্টি।

ফ্রি (Free) : ফোনের সাথে ফ্রি থাকছে একটি চার্জার এবং হেড ফোন।

অফিশিয়াল ওয়েবসাইট: https://www.itel-mobile.com/in/products/smart-phone/vision-1/

Tags: Itel Vision 1 Pro price in Bangladesh, Itel Vision 1 Pro processor, Itel Vision 1 Plus price, Itel Vision 1 Pro features and configuration, Itel customercare. আইটেল ফোন ২০২১, আইটেল ভিসন প্রো, আইটেল ভিসন প্লাস.

SeeCloseComments
Cancel